Breaking News

যেসব খাবার মানসিক স্বাস্থ্য ভালো রাখে

আমরা শারীরিক স্বাস্থ্য নিয়ে যতটা সচেতন মানসিক স্বাস্থ্য নিয়ে ততটা সচেতন নই।কিন্তু মানসিক স্বাস্থ্য খারাপ থাকলে তা শারীরিক স্বাস্থ্যের উপর ভীষণভাবে প্রভাব ফেলে।

কারণ শারীরিক স্বাস্থ্য এবং মানসিক স্বাস্থ্য ওতপ্রোতভাবে জড়িত।ওয়ার্ল্ড হেলথ অর্গানাইজেশন এর তথ্য থেকে জানা যায় যে, প্রায় ৭.৫ শতাংশ বাংলাদেশি নাগরিক মানসিক সমস্যার শিকার হচ্ছে।

এই দেশে আক্রান্তের পরিমাণ বিশ্বে মোট আক্রান্তের প্রায় ১৫ শতাংশ।মানসিক, শারীরিক এবং সামাজিকভাবে ফিট থাকলে তবেই কোনো ব্যক্তিকে সুস্থ বলা যায়। তাই মানসিক স্বাস্থ্যের যত্ন নেয়া মানে হলো স্ব-যত্নের দিকে প্রথম পদক্ষেপ।

মন এবং শরীর খুব কম সময়ই আলাদাভাবে চিন্তা করে। তাই মন এবং শরীরের যত্ন একসঙ্গেই নেয়া উচিত। কারণ খারাপ মানসিক স্বাস্থ্য স্বাস্থ্যকর সিদ্ধান্ত নেয়ার ক্ষমতাকে প্রভাবিত করে।

কিছু খাবার মানসিক স্বাস্থ্য ভালো রাখতে সহায়তা করে। যেসব খাবার খেলে মানসিক স্বাস্থ্য ভালো থাকবে সে খাবারগুলো হলো-1.দানাশস্য যেমন—বাদামি চাল, ওটমিল, বাজরা, গম।

2. প্রোবায়োটিক সমৃদ্ধ খাবার। যেমন—দই, বাটার মিল্ক, ঘরে তৈরি আচার।3. ম্যাগনেসিয়াম সমৃদ্ধ খাবার। যেমন—ডার্ক চকলেট, কলা, কাজু, বাদাম এবং মটরশুটি।

4. অ্যান্টিঅক্সিড্যান্ট সমৃদ্ধ খাবার। যেমন—বেরি, সবুজ শাক-সবজি, ডার্ক চকলেট, আদা এবং হলুদ।5. ওমেগা৩ সমৃদ্ধ খাবার। যেমন—আখরোট, ফ্ল্যাক্স সিড, তৈলাক্ত মাছ যেমন সার্ডাইনস, সেলমন, ক্যানোলা তেল ইত্যাদি।

6. ভিটামিন ডি—সূর্যের আলো ভিটামিন ডি এর প্রধান উৎস। আর ভিটামিন ডি সমৃদ্ধ খাবারগুলো হলো মাশরুম, ডিমের কুসুম, সেলমন।স্বাস্থ্যকর খাদ্য মানসিক স্বাস্থ্য ঠিক রাখে।

তাই সঠিক খাবার গ্রহণ গুরুত্বপূর্ণ। কারণ মানসিক স্বাস্থ্য শারীরিক স্বাস্থ্যের উপর প্রভাব ফেলতে শুরু করে। এছাড়াও প্রতি রাতে কমপক্ষে ৭-৮ ঘন্টা ঘুমান, হাইড্রেড থাকুন।সূত্র ডেইলি বাংলাদেশ

About Utsho

Check Also

হোটেলের বিছানার চাদর-বালিশ সাদা হওয়ার কারণ কী?

ঘুরতে নিশ্চয় ভালোবাসেন! আর দূরে কোথাও ঘুরতে যাওয়া মানেই হচ্ছে কোনো না কোনো হোটেলে রাত্রি …

Leave a Reply

Your email address will not be published.