Breaking News

জমি চাষ করতে গিয়ে ৬০ লক্ষ টাকার হিরে কুড়িয়ে পেল কৃষক

জমি চাষ করতে গিয়ে ৬০ লক্ষ টাকার হিরে কুড়িয়ে পেল কৃষক, একেই বলে কপাল – প্রতিদিনের মতোই জমিতে চাষ করছিলেন এক কৃষক।হঠাত্ই একটি স্বচ্ছ নুড়ি দেখে স’ন্দেহ হয় তাঁর। পাথরটা ট্যাকে গুঁজে সোজা গয়নার দোকান ছুটে যান তিনি।

পাথরটি পরীক্ষা করেই চক্ষু চড়কগাছ দোকানের মালিকের। স্বচ্ছ পাথরটি আসলে বেশ বড়সড় একটি হিরে। বাজার মূল্য অন্তত ৬০ লক্ষ টাকা! ঘটনাটি অন্ধ্রপ্রদেশের কুরনুল জে’লার গো’লাভানেপল্লী গ্রামে। রোজকার মতো চাষের জমিতে কাজ করার সময়েই হিরে খুঁজে পান ওই কৃষক।

ইতিমধ্যেই ওই চাষির থেকে ১৩.৫ লক্ষ টাকা ও পাঁচ তোলা সোনার বিনিময়ে হিরেটি কিনেছেন এক স্থানীয় হিরে ব্যবসায়ী। আল্লাহ বক্স নামের ওই হিরে ব্যবসায়ীর মতে, হিরা কে’টে পালিশ করার পরে তার দাম প্রায় ৬০ লক্ষ টাকা পর্যন্ত হতে পারে।

অ’ভিজ্ঞ কারিগর দিয়ে পালিশ করলে তবেই মিলবে হিরের আসল মূল্য। তবে, হিরেটির আকার, রঙ বা অন্যান্য তথ্য এখনও খোলসা করেননি ওই হিরে ব্যবসায়ী। গোটা ঘটনাটি এখনও বিশ্বা’স করতে পারছেন না ওই চাষি। তবে, অন্ধ্রপ্রদেশের এই অংশে হিরে খুঁজে পাওয়ার ঘটনা নতুন কিছু নয়।

এর আগেও কুরনুল জে’লাও তার আশেপাশের চাষের ক্ষেত, নদীর পার থেকে হিরে খুঁজে পেয়েছেন অনেকে। প্রতি বছর বর্ষার সময়ে তুঙ্গভদ্রা ও হুন্ডরী নদীর আশেপাশে তাঁবু করে থাকতে শুরু করেন অনেকে। লক্ষ্য একটাই।

বর্ষায় ধুয়ে আসা বালি-কাদার মধ্যে হিরের খোঁজ চালানো। সফলও হন কেউ কেউ। চলতি বছরেই ১২ জুন জন্নাগিরি গ্রামে ভেড়া চড়াতে বেরিয়ে হিরে খুঁজে পান এক ভেড়া-পালক। প্রায় ৫০ লক্ষ টাকা বাজার দরের সেই হিরেটি তিনি বিক্রি করেন ২০ লক্ষ টাকায়।

About Utsho

Check Also

ভরিতে স্বর্ণের দাম বা’ড়লো ২৩৩৩ টাকা

ভরিতে স্বর্ণের দাম ২ হাজার ৩৩৩ টাকা বাড়িয়ে নতুন মূল্য নির্ধারণ করেছে বাংলাদেশ জুয়েলার্স সমিতি …

Leave a Reply

Your email address will not be published.