Breaking News

করো’নায় রাষ্ট্রপতির ছোট ভাইয়ের মৃ’ত্যু

রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদের ছোট ভাই ও তাঁর সহকারী একান্ত সচিব (এপিএস) মো. আবদুল হাই করো’নাভাই’রাসে আ’ক্রান্ত হয়ে মা’রা গেছেন (ইন্না লিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন)।

গতকাল বৃহস্পতিবার দিবাগত রাত ১টার দিকে ঢাকার সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালে (সিএমএইচ) তিনি মা’রা যান।

প্রাণঘাতী করো’নাভাই’রাসে আ’ক্রান্ত হওয়ার পর আবদুল হাইকে সিএমএইচে ভর্তি করা হয়েছিল।

আবদুল হাইয়ের মৃ’ত্যুর খবর সাংবাদিকদের নিশ্চিত করেছেন রাষ্ট্রপতির ভাগ্নে আবুল খায়ের উজ্জ্বল।

আবুল খায়ের বলেন, ‘করোনা উপসর্গ দেখা দিলে গত ২ জুলাই তাঁর (আবদুল হাই) নমুনা পরীক্ষা করা হয়। এতে করো’না পজিটিভ আসে। অবস্থার অবনতি হলে ৫ জুলাই মামাকে ঢাকার সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালের আইসোলেশন ইউনিটে ভর্তি করা হয়। পরে শারীরিক অবস্থার আরো অবনতি হওয়ায় তাঁকে নিবিড় পরিচর্যা কেন্দ্রে (আইসিইউ) রাখা হয়। সেখানেই চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি মারা যান।’

আবদুল হাইয়ের বয়স হয়েছিল ৬৭ বছর। তিনি স্ত্রী, এক ছেলে, দুই মেয়েসহ অসংখ্য গুণগ্রাহী রেখে গেছেন।

আবদুল হাই রাষ্ট্রপতির এপিএস হিসেবে দায়িত্ব পালন করে আসছিলেন। তিনি কিশোরগঞ্জের মিঠামইন উপজেলায় ১৯৫৩ সালে জন্ম নেন। মিঠামইন মুক্তিযোদ্ধা সংসদের কমান্ডার, বিআরডিবির সভাপতি, শিক্ষা ও সাংস্কৃতিক সংগঠন ‘প্রবাহ’র সভাপতিসহ বিভিন্ন সামাজিক ও সাংস্কৃতিক সংগঠনের সঙ্গে যুক্ত ছিলেন।

মুক্তিযোদ্ধা আবদুল হাই মিঠামইনের মুক্তিযোদ্ধা আবদুল হক সরকারি কলেজের সাবেক সহকারী অধ্যাপক হিসেবেও কাজ করেছেন। হাজি তায়েব উদ্দিন স্কুলের প্রতিষ্ঠাতা সদস্য এবং শিক্ষক ছিলেন তিনি।

এলাকার উন্নয়নে আবদুল হাই বিপুল অবদান রেখেছেন। তাঁর মৃ’ত্যুতে এলাকায় শোকের ছায়া নেমে আসে। নয় ভাইবোনের মধ্যে আবদুল হাই ছিলেন অষ্টম।

About Utsho

Check Also

সেই মা’রিয়াকে নিয়ে খেলায় মা’তলেন ডিসি

সাতক্ষীরার কলারোয়া উপজে’লার হেলতলা ইউনিয়নের খলিসা গ্রামে পরিবারের সব স্বজন হা’রানো সেই মা’রিয়া সুলতানা এখনও …

Leave a Reply

Your email address will not be published.