Breaking News

এবার গ’র্ভবতী সানাই! নতুন বি’তর্ক নিয়ে সোশ্যাল মিডিয়ায় ঝ’ড় তুলছে

দেশীয় শোবিজের আলোচিত নাম সানাই মাহবুব। মডেলিং দিয়ে ক্যারিয়ার শুরু করা সানাই নাম লিখিয়েছেন চলচ্চিত্রেও। কিন্তু ক্যারিয়ার শুরু পর থেকেই বিভিন্ন সময়ে বিতর্কের শিকার হয়েছেন তিনি। এবার গ’র্ভ’বতী ইস্যু নিয়ে নতুন বিতর্ক শুরু হয়েছে সানাইকে নিয়ে।

কিন্তু সানাই জানান, একটি কুচক্রী মহলের গুজবের শিকার তিনি।সম্প্রতি ওজন বেড়ে যাওয়ায় নিয়মিত জিমে যাচ্ছেন সানাই। এছাড়া ডাক্তারের শরণাপন্নও হন তিনি। কিন্তু কিছু পরীক্ষা-নিরিক্ষার রিপোর্ট সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়লে গ’র্ভব’তী ইস্যুর গুজব ছড়িয়ে পরে।

বিষয়টি নিয়ে সানাই বলেন, শরীরের ওজন বাড়ার কারণে নিয়মিত জিমে যাচ্ছি। তাছাড়া হঠাৎকরে ক্ষুধা বেড়ে যাওয়ায় ডাক্তারের কাছে যাই। ডাক্তারের পরামর্শ অনুযায়ী কিছু পরীক্ষা-নিরীক্ষা করাই।কিন্তু সেই রিপোর্টকে একটি কুচক্রী মহল আমার প্রেগন্যান্সি রিপোর্ট বলে গুজব তৈরি করে।

আমি আবারো বলবো আমার বাগদান হয়েছে, এখনো বিয়ে হয়নি। আপনারা গুজবে কান দেবেন না। যা ছড়িয়েছে তা নিত্যান্তই মিথ্যে ও বানানো গল্প।‘প্রেমের তাজমহল’ খ্যাত নির্মাতা গাজী মাহাবুবের হাত ধরে চলচ্চিত্রাঙ্গে নাম লেখান সানাই।

তার পরিচালনায় ‘ভালোবাসা ২৪/৭’ নামের একটি ছবিতে জায়েদ খানের বিপরীতে যুক্ত হন সানাই। ছবিটির কিছু অংশের কাজ বাকী রয়েছে। তবে এরইমধ্যে আরো কয়েকটি ছবিতে যুক্ত হয়েছেন এবং ‘ময়নার ইতিকথা’ নামের ছবির কাজ শেষ করেছেন সানাই।

আরো পরুন মাটি কাটার সময় বেড়িয়ে এলো ৭০ বছরের পুরনো অ’ক্ষত মরদেহ মাটি কাটার সময় বেড়িয়ে এলো ৭০ বছরের পুরনো অক্ষত মরদেহ মাটি কাটার সময় হঠাৎ দীর্ঘ দিনের পুরনো একটি কবরস্থানে আনুমানিক ৬০ থেকে ৭০ বছর আগের একটি অক্ষত মরদেহের সন্ধান পাওয়া গেছে।মরদেহের মুখমণ্ডল এবং কাফনের কাপড় অক্ষত ছিলো।

এদিকে এ খবর ছড়িয়ে পড়লে হাজার হাজার উৎসুক জনতা মরদেহটি দেখতে ওই কবরস্থানে ভিড় জমায়। পরে মরদেহটি আবার দাফন করা হয়। মঙ্গলবার (৩ ডিসেম্বর) ওই স্থানে ইট দিয়ে বাউন্ডারি দেয়াল নির্মাণ করা হয়েছে।

এর আগে গতকাল সোমবার (২ ডিসেম্বর) দুপুরে গাইবান্ধার গোবিন্দগঞ্জ উপজেলার ৬ নম্বর দরবস্ত ইউনিয়নের অভিরামপুর গ্রামের হাজিপাড়ায় এ ঘটনা ঘটে।স্থানীয়রা জানায়, ওই স্থানে একটি উঁচু ঢিবি ছিলো। জমির মালিক ঢিবির মাটি অন্যত্র বিক্রি করায় শ্রমিকরা ৩-৪ ফুট মাটি কাটার পরেই মরদেহটি দেখতে পান।

মরদেহের মুখমণ্ডল এবং কাফনের কাপড় অক্ষত ছিলো। মরদেহটি কোনো পরহেজগার ব্যক্তির হতে পারে। সে কারণেই হয়তো নষ্ট হয়নি। এ খবর ছড়িয়ে পড়লে হাজার হাজার মানুষ মরদেহটি দেখার জন্য ভিড় জমায়।পরে মরদেহটি আবার দাফন করা হয়। স্থানীয় সংবাদকর্মী জিল্লুর রহমান পলাশ ও আমিরুল ইসলাম কবির বলেন,

এ নিয়ে দিনভর স্থানীয় মানুষের মাঝে ব্যাপক আলোচনা চলে। কেউ বলছেন মরদেহটি ৬০-৭০ বছরের পুরোনো আবার কেউ বলছেন প্রায় দেড় থেকে দুইশ বছরের পুরনো। তবে মরদেহটির পরিচয় কেউ নিশ্চিত করতে পারেননি।বিষয়টি নিশ্চিত করে গোবিন্দগঞ্জ থানা পুলিশের পরিদর্শক (তদন্ত) আফজাল হোসেন জানান, মরদেহটি দীর্ঘ দিনের পুরনো। তবে মরদেহটির পরিচয় কেউ দিতে পারেননি।

About Utsho

Check Also

সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায়ের শা’রীরিক অ’বস্থার উ’ন্নতি

করোনায় আক্রান্ত হয়ে কলকাতার বেলভিউ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন বাংলা চলচ্চিত্রের কিংবদন্তি অভিনেতা সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায়ের শারীরিক অবস্থার …

Leave a Reply

Your email address will not be published.