Breaking News

অনলাইন শিক্ষা কার্যক্রমে সেরা দশে নর্থ ওয়েস্টার্ন ইউনিভার্সিটি

মিথুন : বিশ্বব্যাপী করোনার প্রাদুর্ভাবে দেশের সকল স্তরের শিক্ষা কার্যক্রম ব্যাহত হচ্ছে। আন্তঃ মন্ত্রণালয়ের সিদ্ধান্ত মোতাবেক গত মার্চের ১৮ তারিখ থেকে দেশের সকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ ঘোষণা করা হয়। এতেকরে, লেখাপড়ায় পিছিয়ে পড়ছে শিক্ষার্থীরা। শিক্ষার্থীদের লেখাপড়ার ক্ষতি ও সেশনজটের কথা বিবেচনায় এনে খুলনাস্থ প্রথম পূর্ণাঙ্গ বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয় নর্থ ওয়েস্টার্ন ইউনিভার্সিটি কর্তৃপক্ষ অনলাইন শিক্ষা কার্যক্রম অব্যাহত রেখেছে। এ কার্যক্রমে সেরা দশে স্থান করে নিয়েছে নর্থ ওয়েস্টার্ন ইউনিভার্সিটি।

বিশ্ববিদ্যালয় পর্যায়ে অনলাইন শিক্ষা কার্যক্রমের তালিকায় শীর্ষ ১০ বিশ্ববিদ্যালয়ের মধ্যে ৭টিই বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়। বাকি তিনটির মধ্যে একটি সাধারণ এবং বাকি দুটো প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়।

বর্তমানে বাংলাদেশ গবেষণা ও শিক্ষা নেটওয়ার্কের (বিডিরেন) এর সর্বশেষ তথ্য মতে, বিডিরেনের ডেটা সেন্টারের জুম অ্যাপ্লিকেশনের মাধ্যমে সোমবার (৬ জুলাই) পর্যন্ত দেশের ১৪২টি পাবলিক ও প্রাইভেট
বিশ্ববিদ্যায়ের ৫০ লাখ ৮ হাজার ৯৯৭ জন শিক্ষার্থী অনলাইন ক্লাসে অংশ নিয়েছেন। এ তালিকার শীর্ষে রয়েছে বিজিএমইএ ইউনিভার্সিটি অব ফ্যাশন অ্যান্ড টেকনোলজি।

২য় স্থানে রয়েছে গ্রিন ইউনিভার্সিটি। শীর্ষ তিনে অবস্থান করছে আন্তর্জাতিক ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়, চট্টগ্রাম। যৌথভাবে ১০ম স্থানের রয়েছে বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয় (বুয়েট) ও নর্থ ওয়েস্টার্ন ইউনিভার্সিটি।

এ প্রসঙ্গে নর্থ ওয়েস্টার্ন ইউনিভার্সিটির উপাচার্য প্রফেসর ড. তারাপদ ভৌমিক বলেন, করোনার প্রভাবে সরকার দেশের সকল বিশ্ববিদ্যালয় বন্ধ ঘোষনা করেছে। এতেকরে, শিক্ষার্থীরা লেখাপড়ায় অনেকটা পিছিয়ে পড়েছে। শিক্ষার্থীরা যাতে লেখাপড়ায় পিছিয়ে না পড়ে এবং সেশনজটের কবলে না পড়ে বিষয়টি বিবেচনায় এনে ইউজিসি একটি সময়োপযোগী সিদ্ধান্ত গ্রহণ করেছে। ইউজিসি প্রদত্ত নির্দেশনা মোতাবেক আমাদের বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন ফ্যাকাল্টির ডীনগণ, বিভাগীয় প্রধানগণ ও সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছেন। অনলাইন শিক্ষা কার্যক্রমে ১০ স্থান অর্জন বিশ্ববিদ্যালয়ের জন্য এক বড় ধরণের পাওয়া। এতেকরে, শিক্ষার্থীরাও সুফল পাচ্ছে। শিক্ষার্থীদের জন্য আমাদের এই পরিসেবা চলমান থাকবে।

উল্লেখ্য, এর আগে ৭ মে, ২০২০ ইং তারিখে বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশন (ইউজিসি) বন্ধকালীন সময়ে অনলাইনে একাডেমিক কার্যক্রম চালানোর আহবান জানিয়ে দেশের সব পাবলিক ও প্রাইভেট বিশ্ববিদ্যালয়ের জন্য নির্দেশনা জারি করে চিঠি প্রদান করে। নির্দেশনায় বলা হয়, বিডিরেনের ডেটা সেন্টারের জুম অ্যাপ্লিকেশনের মাধ্যমে বিনা খরচে এ অনলাইন কার্যক্রম চালানো সম্ভব। এ বিষয়ে সহযোগিতার জন্য শিক্ষকদের বিডিরেনের সঙ্গে যোগাযোগের আহবান জানানো হয়। ইউজিসি’র ওই নির্দেশনায় সাড়া দিয়ে এখন পর্যন্ত দেশের ১৪২টি বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষকরা অনলাইন কার্যক্রম শুরু করেছে।

About Utsho

Check Also

হোটেলের বিছানার চাদর-বালিশ সাদা হওয়ার কারণ কী?

ঘুরতে নিশ্চয় ভালোবাসেন! আর দূরে কোথাও ঘুরতে যাওয়া মানেই হচ্ছে কোনো না কোনো হোটেলে রাত্রি …

Leave a Reply

Your email address will not be published.